প্রকাশ: ০৯:৫১:০০ পিএম, ১১ মার্চ ২০১৮
স্বামীর জোড়ে ‘ইসলাম ধর্ম’ কিন্তু মন থেকে ‘হিন্দু’!এর মানে...

ঢালিউড পাড়ার সমালোচনার বিষয়বস্তু শাকিব খান-অপু বিশ্বাস। দীর্ঘদিনের গোপন বিবাহের খবর সরাসরি গণমাধ্যমে এসে ফাঁস করেন অপু বিশ্বাস। গণমাধ্যমে ফাঁস করেন তাদের সন্তান আছে সে খবরও। এরপর থেকেই যেন শাকিব-অপুর সম্পর্কে ভাটা পড়ে। আর তার চূড়ান্ত রূপ নেয় ২২ নভেম্বর

শাকিবের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর অপু ‘হিন্দু’ থেকে ‘ইসলাম’ ধর্ম গ্রহণ করেন। অপু বিশ্বাস থেকে হয়ে যান অপু ইসলাম খান। তবে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে অপু জানান, নিয়মিত নামাজ পড়েন, রোজা রাখেন মুসলিম অপু। হজ করার ইচ্ছার কথাও জানান তিনি। তবে এত নাটকীয়তার মাঝে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ তাঁর নিজ ইচ্ছায় নয় জোড় করে সেটাও গণমাধ্যমে বলেন অপু। শাকিব তাঁকে জোড় করে ধর্মান্তরিত করেছেন এমনটাই জানিয়েছিলেন তিনি। তার মানে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেও তার সব কিছুই যে জোড় পূর্বক এবং মন থেকে অপু এখনও অপু বিশ্বাসই আছেন তা বলাই যায়।

আগামীকাল সোমবার ডিএনসিসি শাকিব-অপুর তৃতীয় শুনানি। সমঝোতা না হলে বিচ্ছেদ চূড়ান্তভাবে কার্যকর হয়ে যাবে তাদের। তবে সমঝোতা যে হবে না সেটি দিনের আলোর মতোই স্পষ্ট। শাকিব আগের দুটি শুনানিতে আসেননি। অপুও তালাক মেনে নিয়েছেন। সুতরাং শাকিব-অপুর দীর্ঘ দাম্পত্যের অবসান ঘটছেই।

তবে এতকিছুর পর মুসলিম অপু ইসলাম খান ফের হিন্দু ধর্মে কি ফিরে যাবেন? বিভিন্ন সূত্র ও অপুর ঘনিষ্ঠদের থেকে জানা যায়, অপু আবারও হিন্দু ধর্মে ফিরে যাবেন। তিনি নিজেও এমনটাই বলেছেন।

ডিভোর্স মেনে নেয়ার পর শাকিবকে ‘চরিত্রহীন’ আখ্যা দিয়েছিলেন অপু। তিনি জানিয়েছিলেন, একমাত্র সন্তানকে তার বাবার মতো কিছুতেই হতে দেবেন না। মেয়েদের সম্মান করতে শেখাবেন। আর সেটি করতে না পারলে আত্মহত্যা করবেন তিনি। শাকিবের প্রতি কতটা অশ্রদ্ধা থাকলে এটি বলা সম্ভব সেটি সহজেই অনুমেয়। শাকিব যদি সত্যিই জোর করা অপুকে ধর্মান্তরিত করে থাকেন, তাহলে অপু যে পুরনো পরিচয়ে ফিরে যাবেন তাতে কোনো সন্দেহ নেই।