প্রকাশ: ০১:০১:০০ পিএম, ১২ মার্চ ২০১৮
কার পরামর্শেই ওপেনিংয়ে লিটন?

চলতি ত্রিদেশীয় টি২০ সিরিজে ব্যাট হাতে নিজেকে নতুন করে চেনাচ্ছেন টাইগার ব্যাটসম্যান লিটন দাস। সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে তিন নম্বরে নেমে দলের সর্বোচ্চ রান স্কোরার ছিলেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ওপেনিংয়ে ব্যাট করেছেন। দলকে জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছেন ওপেনিংয়ে তামিমকে সঙ্গে নিয়ে দুর্দান্ত এক জুটি গড়ে। রবিবার সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপকালে বিসিবি সভাপতি লিটনকে ওপেনিংয়ে নামানোর ব্যাখ্যা দিয়েছেন।

নাজমুল হাসান জানিয়েছেন লিটনকে দিয়ে ওপেন করানোর পরিকল্পনাটা নাকি ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনের। ভারতের বিপক্ষে হারের পর টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে তিন সিনিয়র খেলোয়াড় মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবালকে নিয়ে যে বৈঠকটি বিসিবি সভাপতি করেছিলেন, সেখানেই লিটনকে ওপেনিংয়ে নামানোর প্রস্তাব দেন সুজন।

শ্রীলঙ্কার পরিকল্পনা বাঁধাগ্রস্ত করতেই লিটনকে ওপেনিংয়ে নামানো হয় বলে জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি, ‘ওদের বলেছিলাম, জয়-পরাজয় ব্যাপার নয়, তবে প্রতিটি খেলোয়াড়কে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিংয়ে বোঝাতে হবে আমরা জিততে চাই। হঠাৎ খালেদ মাহমুদ (দলের ম্যানেজার) প্রস্তাব দেয় লিটন দাসকে ওপেনিংয়ে পাঠানো হোক। শ্রীলঙ্কা হয়তো পরিকল্পনা করেছিল তামিম-সৌম্যকে নিয়ে।

শুরুতে তাদের জন্য কোন বোলার আনবে, সেটাও হয়তো তাদের ঠিক করা ছিল। তাদের এই পরিকল্পনায় ব্যাঘাত ঘটাতেই লিটনকে ওপেনিংয়ে আনা। আর লিটন যেহেতু ছন্দে আছে, যে বোলার আসুক সে মারতে পারবে। তামিম পরে বলল, এটা খারাপ নয়, ভালো আইডিয়া। আমি শুধু বললাম, যা-ই করো লিটন ও সৌম্যর সঙ্গে একটু কথা বলে নিয়ো।’

এদিকে লিটন জানিয়েছেন, নিজের নতুন দায়িত্বের কথা আগে থেকেই জানতেন তিনি। তাই সেভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছেন এই ব্যাটসম্যান, ‘এমন কিছু মনে হয়নি। আমি আগেও ওপেন করেছি। হয়তো খুব একটা সুযোগ পাইনি জাতীয় দলে ওপেনিং করার। আমার দায়িত্ব ছিল ভালো শুরু এনে দেওয়া, সেটাই করার চেষ্টা করেছি।’