প্রকাশ: ০৬:৩৫:০০ পিএম, ০৬ অক্টোবর ২০১৮
১০ কোম্পানির শেয়ারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সতর্কবার্তা

সপ্তাহজুড়ে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ১০ কোম্পানির শেয়ারদর অস্বাভাবিকহারে বেড়েছে। এ কারণে কোম্পানিগুলোতে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে সতর্কবার্তা প্রকাশ করেছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।

কোম্পানিগুলো হলো দুলামিয়া কটন, এসকে ট্রিমস, স্টাইল ক্রাফট, আজিজ পাইপ, সিভিও পেট্রোকেমিক্যাল, মুন্নু সিরামিক, ইমাম বাটন, রহিম টেক্সটাইল, জুট স্পিনার্স এবং সাভার রিফ্যাক্টরিজ।

কোম্পানি ১০টির কর্তৃপক্ষের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিনিয়োগকারীদের সতর্ক করতে গত সপ্তাহে (৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ অক্টোবর) এসব সতর্কবার্তা প্রকাশ করা হয়।

ডিএসই জানিয়েছে, কোম্পানি ১০টির শেয়ারের অস্বাভাবিক দাম বাড়ার পেছনের কারণ জানতে চেয়ে নোটিশ পাঠানো হয়। এর জবাবে কোম্পানিগুলোর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের যে অস্বাভাবিক দাম বেড়েছে, তার জন্য তাদের কাছে অপ্রকাশিত কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই।

দুলামিয়া কটন : ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে দুলামিয়া কটনের শেয়ার দাম টানা বাড়ছে। ২৫ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ১৯ টাকা ৪০ পয়সা, যা পাঁচ কার্যদিবসের ব্যবধানে ২ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ৩০ টাকা ৪০ পয়সা। অর্থাৎ পাঁচ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ে ১১ টাকা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ার ধারা অব্যাহত রয়েছে।

এসকে ট্রিমস : একইভাবে ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে কোম্পানিটির শেয়ার দাম টানা বাড়ছে। ২৫ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ২৫ টাকা ৮০ পয়সা, যা পাঁচ কার্যদিবসের ব্যবধানে ২ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ৩৬ টাকা ৭০ পয়সা। অর্থাৎ পাঁচ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ে ১০ টাকা ৯০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতেই ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ার ধারা অব্যাহত রয়েছে।

স্টাইল ক্রাফট : প্রায় এক মাস ধরে স্টাইল ক্রাফটের শেয়ার দাম অনেকটা টানা বাড়ছে। ৬ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ২ হাজার ৬৬৫ টাকা, যা ১৬ কার্যদিবসের ব্যবধানে ১ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ৪ হাজার ৩১২ টাকা ১০ পয়সা। অর্থাৎ ১৬ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ে ১ হাজার ৬৪৭ টাকা ১০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ার ধারা অব্যাহত রয়েছে।

আজিজ পাইপ : ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে কোম্পানিটির শেয়ার দাম টানা বাড়ছে। ২৪ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ১৬১ টাকা ৫০ পয়সা, যা পাঁচ কার্যদিবসের ব্যবধানে ১ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ১৮৯ টাকা ৩০ পয়সা। অর্থাৎ পাঁচ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ে ২৭ টাকা ৮০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়। এরপর দুই কার্যদিবস কোম্পানিটির শেয়ার দাম কিছুটা কমে। তবে ৪ অক্টোবর শেয়ার দাম আবার বেড়েছে।

সিভিও পেট্রোকেমিক্যাল : ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে কোম্পানিটির শেয়ার দাম টানা বাড়ছে। ২৭ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ১৪৭ টাকা ১০ পয়সা, যা তিন কার্যদিবসের ব্যবধানে ২ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ১৮০ টাকা ২০ পয়সা। অর্থাৎ তিন কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ে ৩৩ টাকা ১০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়। এরপর কোম্পানিটির শেয়ার দাম কিছুটা কমেছে।

মুন্নু সিরামিক : এক মাসের বেশি সময় ধরে অনেকটা টানা দাম বাড়ছে কোম্পানিটির শেয়ারের। ২৯ আগস্ট কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ২৫২ টাকা ৮০ পয়সা, যা ৩ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ৩৫৮ টাকা ৮০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ার দাম বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রয়েছে।

ইমাম বাটন : প্রায় এক মাস ধরে অনেকটা টানা দাম বাড়ছে কোম্পানিটির শেয়ারের। ১০ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ১৯ টাকা, যা বেড়ে ৩ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ২৫ টাকা ৭০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ার দাম বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রয়েছে।

রহিম টেক্সটাইল : গত ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম টানা বাড়ছে। ১৬ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ৩৮৭ টাকা ৫০ পয়সা, যা বেড়ে ৪ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়িয়েছে ৫১২ টাকা ৩০ পয়সা। এর প্রেক্ষিতেই ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়।

জুট স্পিনার্স : গত ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে টানা দাম বাড়ছে কোম্পানিটির শেয়ারের। ২৬ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ৭০ টাকা, যা বেড়ে ৪ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়িয়েছে ১০০ টাকা ৩০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়।

সাভার রিফ্যাক্টরিজ : ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে টানা বাড়ছে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম। ২৭ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দাম ছিল ৮৩ টাকা ৫০ পয়সা, যা বেড়ে ৪ অক্টোবর লেনদেন শেষে দাঁড়ায় ১০৯ টাকা ২০ পয়সা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএসই থেকে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা প্রকাশ করা হয়েছে।