ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩


নিতুকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে মিলন

সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ | ০৯:২৩:৪৮ pm

মাদারীপুরে নবম শ্রেণীর ছাত্রী নিতু মণ্ডল হত্যার ঘটনায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে ঘাতক মিলন।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মাদারীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যার দ্বায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয় মিলন। এরপর বিজ্ঞ আদালতের বিচারক ফৌজিয়া হাফছা মিলনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মাদারীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে দায়িত্বরত পুলিশের পরিদর্শক শাজাহান মিয়া জানান, মিলন বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। আদালতের নির্দেশে মিলনকে কারগারে পাঠানো হয়েছে। মিলনের দেওয়া তথ্যানুযায়ী নিতুর বাড়ির পাশের একটি বাগান থেকে হত্যার কাজে ব্যবহৃত ছুরিটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে গ্রামের বাড়িতে নিতুর মরদেহের সৎকার করা হয়েছে।

এদিকে ঘাতক মিলনের দ্রুত বিচারের দাবীতে মানবববন্ধন করেছে কালকিনি উপজেলার নবগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্কুল মাঠে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) মাদারীপুরের কালকিনির নবগ্রাম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী নিতু মণ্ডলকে কুপিয়ে হত্যা করে প্রতিবেশী যুবক মিলন। ঘটনার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় গণধোলাই দিয়ে মিলনকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় এলকাবাসী।

বাংলারকণ্ঠ ডটকম/ঢাকা/১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/এস আই/জে এইচ