ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩


কপোতাক্ষের বাঁধ ভেঙে ৬ গ্রাম প্লাবিত : সংস্কারের চেষ্টা

মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ | ০৪:১৩:২৮ pm

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কুড়িকাউনিয়া লঞ্চঘাট এলাকার বেড়িবাঁধটি এখনও সংস্কার করা সম্ভব হয়নি। স্থানীয় ১০ হাজার মানুষ স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে বাঁধটি সংস্কারের চেষ্টা করছে। 

এদিকে জোয়ারের প্রবল চাপে কুড়িকাউনিয়া, কল্যাণপুর, শ্রীপুর, সনাতনকাঠি, প্রতাপনগর ও তালতলা গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। সোম থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত ছয়টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। তলিয়ে গেছে এসব এলাকার শত শত চিংড়ি ঘের, পুকুর ও ফসলি জমি। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে তিন হাজার পরিবার। 

সোমবার ভোররাতে উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কুড়িকাউনিয়া গ্রামের ৭/২ পোল্ডার সংলগ্ন এলাকায় কপোতাক্ষের প্রায় দেড়শ ফুট বেড়িবাঁধ ভেঙে যায়।
 
প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন জানান, আগে থেকেই বাধটি ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। প্রবল জোয়ারের াঁপে হঠাৎ সোমবার ভোর রাতে বাঁধটি ভেঙে যায়। এতে গতকাল থেকে এখন পর্যন্ত তিন হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বাঁধটি সংস্কার করা না গেলে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হবে। 

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী ফারুক হোসেন জানান, কুড়িকাউনিয়া লঞ্চঘাট এলাকার বেড়িবাঁধটি সংস্কারের জন্য ভিতর দিয়ে একটি ৩০০ মিটারের রিংবাঁধ দেয়া হচ্ছে। 

সেখানে ঠিকাদার ও স্থানীয় লোকসহ দশ হাজার মানুষ কাজ করছে। ইতোমধ্যে অর্ধেক কাজ শেষ হওয়ার পর জোয়ারের তোরে আজ আর কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না। বুধবার বাকি অংশের কাজ শেষ করা হবে।

বাংলারকণ্ঠ ডটকম/ঢাকা/২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/এ এইচ/এস আই