প্রকাশ: ০৪:১৫:০০ পিএম, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
মানুষকে হয়রানি না করতে পুলিশকে রাষ্ট্রপতির আহ্বান

সেবা নিতে আসা মানুষকে হয়রানি না করে পুলিশকে প্রয়োজনীয় আইনগত সেবা ও পরামর্শ দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

তিনি বলেন, জনগণের আস্থা অর্জন করে আপনারা পুলিশকে একটি সেবাধর্মী ও জনবান্ধব সার্ভিসে পরিণত করতে সর্বদা সচেষ্ট থাকবেন-এটাই দেশবাসীর প্রত্যাশা।

আজ বুধবার পুলিশ সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে বঙ্গভবনে এক অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি এ আহ্বান জানান। খবর ইউএনবরি।

রাষ্ট্রপতি বলেন, আপনাদের (পুলিশের) কাছে সেবা নিতে আসা কোনো মানুষই যেন হয়রানির শিকার না হয় এবং প্রয়োজনীয় আইনগত সেবা ও পরামর্শ পায় সে দিকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য সুশাসনের অন্যতম নিয়ামক হলো আইনের যথাযথ প্রয়োগ। দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিধান ও নিরাপদ সমাজ প্রতিষ্ঠায় আপনাদের দায়িত্বশীল ভূমিকা অব্যাহত রাখতে হবে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, মানবাধিকার ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ সমুন্নত রেখে দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিধান, জনগণের জানমালের সুরক্ষা, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, সন্ত্রাস ও অপরাধ দমন আপনাদের প্রধান দায়িত্ব। এ গুরুদায়িত্ব পালনে পুলিশ ও জনসাধারণের পারস্পরিক সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন।

বিশ্বের সমসাময়িক অপরাধ মোকাবেলায় পুলিশ, জনগণ ও প্রযুক্তির মেলবন্ধনে নতুন ধারার পুলিশিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, কমিউনিটি পুলিশিং এর পাশাপাশি আধুনিক পুলিশিং ব্যবস্থার উত্তম চর্চার আলোকে উদ্ভাবনী পুলিশিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ পুলিশ সদস্যদের পেশাদারিত্ব ও সাফল্য আজ সারাবিশ্বে স্বীকৃত উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের নারী পুলিশ সদস্যরাও শান্তিরক্ষা মিশনে অর্পিত দায়িত্ব সাফল্যের সাথে পালন করে যাচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে আপনারা দেশপ্রেম, সততা ও নিষ্ঠার সাথে দেশ ও জনগণের সেবায় আরো নিবেদিত হয়ে কাজ করবেন-এ প্রত্যাশা করছি।