প্রকাশ: ১২:০২:০০ পিএম, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানো হবে শনিবার

রাতকানা রোগ প্রতিরোধে জাতীয় পুষ্টি কর্মসূচির আওতায় স্থ‌গিত ভিটা‌মিন ‘এ’ ক্যা‌ম্পেইন আগামী শনিবার আনু‌ষ্ঠিত হ‌বে।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপন উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ১ লাখ ২০ হাজার স্থায়ী কেন্দ্রে এবং ২০ হাজার ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রের মাধ্যমে এ ক্যাম্পেইন পরিচালনা করা হবে। এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ২৫ লাখ ২৭ হাজার শিশুকে নীল রঙের একটি করে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ১ কোটি ৯৫ লাখ ৭ হাজার শিশুকে লাল রঙের একটি করে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

এবার দেশি প্রতিষ্ঠানের তৈরি ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল শিশুদের খাওয়ানো হবে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, যে ভিটামিন খাওয়ানো হচ্ছে তা সম্পূর্ণ নিরাপদ। কোনো প্রকার গুজবে কান না দিয়ে ৬ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর জন্য সরকার নির্ধারিত কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গত ১৯ জানুয়ারি ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের তারিখ নির্ধারণ করা ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ওষুধের গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় তা স্থগিত করা হয়। কারণ আমরা শিশুদের জন্য ঝুঁকি নিতে চাইনি। ফলে সেই ক্যাপসুল ব্যবহার করিনি। এবারের ক্যাপসুলে সে ধরনের সমস্যা নেই। ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুলে ত্রুটির ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি একটি প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে জমা দিয়েছে। ওই প্রতিবেদন এখনও আমরা দেখিনি। তবে যে বা যারাই দোষী সাব্যস্ত হবে, তাদের শাস্তি পেতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের জিএম সালেহ উদ্দিন, অতিরিক্ত সচিব কাজী আ খ ম মুহিউল ইসলামসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।